Text size A A A
Color C C C C
পাতা

কী সেবা কীভাবে পাবেন

ক)চিকিৎসাঃসকাল ০৯টা থেকে বিকাল ০৫টা পর্যন্ত গবাদিপ্রাণি,হাঁস-মুরগী অথবা অন্য কোন প্রাণী বা পাখী অত্র দপ্তরে নিয়ে আসলে বিনামূল্যে চিকিৎসা দেওয়া হয়।উল্লেখিত সময়ের পরে নির্ধারিত ফি-র মাধ্যমে বাড়ীতে/খামারে গিয়ে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়।

খ)অত্র উপজেলাধীন কোথাও কোন প্রাণী অথবা পাখীর(হাঁস-মুরগীসহ অন্যান্য) অস্বাভাবিক মৃত্যুর খবর পেলে সরকারী খরচে আঞ্চলিক প্রাণিরোগ অনুসন্ধান গবেষনাগার, সিরাজগঞ্জ অথবা কেন্দ্রীয় প্রাণিরোগ অনুসন্ধান গবেষনাগার,আলাউদ্দিন রোড ঢাকায় রোগ নির্নয়ের জন্য পাঠানো হয়।

 

গ)কৃত্রিম প্রজননঃ গাভী/বকনা অত্র দপ্তরে  নিয়ে আসলে সরকার কর্তৃক নির্ধারিত ফি-র মাধ্যমে কৃত্রিম প্রজনন সেবা দেওয়া হয়।যদি কেউ অত্র দপ্তরে গাভী/বকনা না আনতে পারেন সেইক্ষেত্রে বাড়ীতে/খামারে গিয়ে কৃত্রিম পজনন সেবা দেওয়া হয়। যিনি উক্ত কাজটি করেন তার পদবী এফ.এ(এ/আই)।

   কাশিনাথপুর ইউনিয়ন পরিষদে প্রাণিসম্পদের জন্য ধার্য্যকৃত রুমে একই পদবীর একজন এবং আতাইকুলা ইউনিয়নের বৃহস্পতিপুর বাজারে অন্য একটি কৃত্রিম প্রজনন কেন্দ্র থেকে একই পদবীর একজন একই নিয়মে কৃত্রিম প্রজনন সেবা প্রদান করেন।

   উল্লেখিত তিনজন ছাড়াও আরও আটটি ইউনিয়নে একজন করে মোট আটজন কৃত্রিম প্রজনন স্বেচছাসেবী আছেন; যারা প্রকল্প কর্তৃক নির্ধারিত ফি-র মাধ্যমে ইউনিয়ন পরিষদ কপ্লেক্স থেকে অথবা বাড়ীতে/খামারে গিয়ে কৃত্রিম প্রজনন সেবা দিয়ে থাকেন।

 

ঘ)টিকা প্রদান-  অত্র দপ্তরের তিনজন কর্মচারী যাদের পদবী ভি.এফ.এ বাড়ীতে/খামারে গিয়ে সরকার কর্তৃক নির্ধারিত মূল্যে গবাদিপ্রাণি এবং হাঁস-মুরগীর টিকা প্রদান করে থাকেন। ইহা ছাড়াও অত্র দপ্তর থেকে হাঁস-মুরগীর টিকা সরকার কর্তৃক নির্ধারিত মূল্যে জনগন/খামারীদেরকে সরবরাহ দেওয়া হয়।

 

ঙ)প্রশিক্ষণ- সরকারী প্রকল্প/এনজিও-র মাধ্যমে পবাদিপ্রাণি এবং হাঁস-মুরগী পালনকারীদের স্বল্প মেয়াদী প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়।